1. [email protected] : admin001 :
  2. [email protected] : Khairul Islam Sohag : Khairul Islam Sohag
  3. [email protected] : Mizanur Rahman : Mizanur Rahman
  4. [email protected] : JM Amin Hossain : JM Amin Hossain
  5. [email protected] : Soyed Feroz : Soyed Feroz
  6. [email protected] : Masud Sarder : Masud Sarder
  7. [email protected] : Kalam Sarder : Kalam Sarder
  8. [email protected] : Md. Imam Hoshen Sujun : Md. Imam Hoshen Sujun
  9. [email protected] : Royal Imran Sikder : Royal Imran Sikder
  10. [email protected] : amsitbd :
 চাকুরি দেওয়ার নামে প্রতারণা | সময়ের খবর
রবিবার, ০১ নভেম্বর ২০২০, ০৩:৫৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
দারুস সালাম সলঙ্গা এর ২য় বর্ষে পদার্পণে সদস্যদের নিয়ে মতবিনিময় পিরোজপুরের স্বরূপকাঠিতে নিখোঁজের একদিন পরে স্কুল ছাত্রীর লাশ উদ্ধার  সলঙ্গা থানা আ.লীগের বর্ধিত সভায় ওয়ার্ড ও ইউনিয়নের সম্মেলন সম্পন্ন করার নির্দেশ সেনবাগে স্বামীকে হত্যার অভিযগে দ্বিতীয় স্ত্রী আটক কালীগঞ্জের সেই অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপক জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানাতেৃ সাধারন ডায়েরি কাউখালীতে সাজাভুক্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার রামপালে উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত কালীগঞ্জে আগে কেটেছে পটল ও পেয়ারা  ক্ষেত,এবার পুকুরে বিষটোপ দিয়ে মাছ নিধন  থানায় অভিযোগ বিনা ছুটিতে সহকর্মী চিকিৎসকের বিয়েতে, তিন চিকিৎসককে শোকজ! রামগঞ্জে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্যদিয়ে কমিউনিটি পুলিশিং ডে পালন

 চাকুরি দেওয়ার নামে প্রতারণা

বাউফল প্রতিনিধি:
  • আপডেট: শনিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২০
পটুয়াখালী বাউফলের কালিশুরী ইউনিয়নের ভুমি সহকারি কর্মকর্তা (তহশিলদার) মো. আবদুল জব্বার আকনের বিরুদ্ধে চাকুরি দেওয়া নামে প্রতারণার মাধ্যমে ৫ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে।
এমন অভিযোগ করেছেন উপজেলার কেশবপুর ইউনিয়নের মমিনপুর গ্রামের মো. আবদুল খালেক হাওলাদারের মেয়ে মোসা. রুমানা বেগম(২৯)। অভিযোগ সূত্রে জনাগেছে,  জব্বার আকন নামের ওই তহশিলদার ভূমি অফিসে পিয়ন পদে চাকুরি দেওয়ার প্রতিশ্রæতি দিয়ে রুমানা’র কাছে ১০ লাখ টাকা দাবী করেন।
পূর্ব পরিচিত হওয়ায় রুমনা পূরণকৃত চাকুরির আবেদন ফরম ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ নগদ ৫ লাখ টাকা জব্বারের কাছে জমা দেন। জব্বার ৫ লাখ টাকা অগ্রিম গ্রহণ করে অফিসিয়াল সীলসহ স্বাক্ষর করেন। কিন্তু টাকা নেওয়ার দুই বছর পার হয়ে গেলেও চাকুরি বা টাকা কোনটাই দিচ্ছেন না জব্বার।
তহশিলদার জব্বারকে টাকা প্রদানকালে স্বাক্ষী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভূমি অফিসের নাজির মো. রফিকুল ইসলাম। মো. রফিকুল ইসলাম জানান-রুমানা আমার উপস্থিততে তহশিলদার জব্বার আকনকে চাকুরি বাবদ পাঁচ লাখ টাকা দেয়। রুমনা বেগম বলেন, ধার দেনা করে জব্বার আকনকে পিয়ন পদে চাকরির জন্য পাঁচ লাখ দিয়েছি।
দুই বছর পার হলেও তিনি আমাকে চাকরি দেয়নি। আমার টাকাও ফেরৎ দেয় নি। টাকা চাইলে আমাকে অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ ও জীবননাশের হুমকি দেয়। অভিযোগ অস্বীকার করে জব্বার আকন বলেন- আমি তাকে চিনি না। তাঁর কাছ থেকে চাকুরি দেওয়ার নাম করে টাকা নেইনি। বাউফল উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.জাকির হোসেন বলেন এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদান্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
উল্লেখ্য তহশিলদার আব্দুল জব্বার ইতো পূর্বে যে সকল স্থানে ভূমি অফিসে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। প্রায় কর্মস্থল থেকেই তার বিরুদ্ধে একই জমি একাধিক ব্যক্তির কাছে লিজ প্রদান এবং জমি (মিউটিশন) নামজারী করানোর নামে লক্ষলক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ রয়েছে।

আপনার মতামত এখানে লিখুন

Please Share This Post in Your Social Media

এই ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ
স্বত্বাধিকারী: রুরাল ইনহ্যান্সমেন্ট অর্গানাইজেশন (রিও) এর সহযোগী প্রতিষ্ঠান। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার জনকল্যাণ মন্ত্রনালয়ের সমাজসেবা থেকে নিবন্ধনকৃত।
Developed BY: AMS IT BD
Translate »