1. [email protected] : admin001 :
  2. [email protected] : Khairul Islam Sohag : Khairul Islam Sohag
  3. [email protected] : Mizanur Rahman : Mizanur Rahman
  4. [email protected] : JM Amin Hossain : JM Amin Hossain
  5. [email protected] : Soyed Feroz : Soyed Feroz
  6. [email protected] : Masud Sarder : Masud Sarder
  7. [email protected] : Kalam Sarder : Kalam Sarder
  8. [email protected] : Md. Imam Hoshen Sujun : Md. Imam Hoshen Sujun
  9. [email protected] : Royal Imran Sikder : Royal Imran Sikder
  10. [email protected] : amsitbd :
লক্ষ্মীপুরে কাশফুলের মুগ্ধতায় হৃদয় ছুঁয়েছে দর্শণার্থীদের | সময়ের খবর
রবিবার, ০১ নভেম্বর ২০২০, ০৪:০২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
দারুস সালাম সলঙ্গা এর ২য় বর্ষে পদার্পণে সদস্যদের নিয়ে মতবিনিময় পিরোজপুরের স্বরূপকাঠিতে নিখোঁজের একদিন পরে স্কুল ছাত্রীর লাশ উদ্ধার  সলঙ্গা থানা আ.লীগের বর্ধিত সভায় ওয়ার্ড ও ইউনিয়নের সম্মেলন সম্পন্ন করার নির্দেশ সেনবাগে স্বামীকে হত্যার অভিযগে দ্বিতীয় স্ত্রী আটক কালীগঞ্জের সেই অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপক জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানাতেৃ সাধারন ডায়েরি কাউখালীতে সাজাভুক্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার রামপালে উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত কালীগঞ্জে আগে কেটেছে পটল ও পেয়ারা  ক্ষেত,এবার পুকুরে বিষটোপ দিয়ে মাছ নিধন  থানায় অভিযোগ বিনা ছুটিতে সহকর্মী চিকিৎসকের বিয়েতে, তিন চিকিৎসককে শোকজ! রামগঞ্জে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্যদিয়ে কমিউনিটি পুলিশিং ডে পালন

লক্ষ্মীপুরে কাশফুলের মুগ্ধতায় হৃদয় ছুঁয়েছে দর্শণার্থীদের

মোহাম্মদ আলী, লক্ষ্মীপুরঃ
  • আপডেট: শনিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২০
 শরৎ শুভ্রতার ঋতু। শরৎ মানেই প্রকৃতিতে নীল আকাশে সাদা মেঘের ঢেউ। শরৎ মানেই নদীর তীরে কাশফুলের সাদা হাসি। তাই কবি জীবনন্দ দাশ বলেছেন , ‘বাংলার মুখ আমি দেখিয়াছি, তাই পৃথিবীর রুপ খুঁজিতে যাই না আর’। শরতের এই অপরূপ দেখে মুগ্ধ কবি অবলীলায় পৃথিবীকে আর দেখার প্রয়োজন নেই সিদ্ধান্ত নেন।
 সবুজ আর সাদা দুটিই শান্তির প্রতিক। আর এই দুইটি ঘিরেই কাশফুল। তাই খুব সহজেই এটি মানুষের মনকে সাজিয়ে তোলে। আর এই কাশ নদীর পাশ কিংবা বিশাল চরেই দেখা মিলে। তবে কাশফুলে সেজে রয়েছে লক্ষ্মীপুরের একটি পরিত্যক্ত ইটভাটা। যা দেখে মুগ্ধ হয়ে উঠছে দর্শণার্থীরা।
ওই ইটভাটায় কাশফুলকে ঘিরে দর্শণার্থীদের পদচারণা ঘটে। স্মৃতি হিসেবে সবাই ক্যামেরায় ধারণ করে কাশফুলের ছবি। নিজেদের ছবি তোলাও বাদ যায় না। বন্ধুমহল, স্বামী-স্ত্রীসহ অনেককেই কাশফুলের সঙ্গে ছবি তুলতে দেখা গেছে। আবার তরুণীরা গাছ থেকে ছিঁড়ে কাশের গোছা সঙ্গে করে নিয়ে যায়।
বলা চলে, চমৎকার মেঘের ঋতু শরতের আকাশ থাকে নীল আর ঝকঝকে পরিস্কার। ওই আকাশের মাঝে টুকরো টুকরো সাদা মেঘ ভেসে বেড়ায়। সবুজ প্রকৃতিতে বাতাসের সঙ্গে খেলা করে সাদা কাশ। এই ঋতুতেই মাটি লেপন করে গৃহবধূরা গ্রামীণ ঘরগুলোকে নিপুণ করে সাজিয়ে তোলে। তবে এখন সেটি খুব কমই চোখে পড়ছে।
লক্ষ্মীপুর শহর থেকে ৭ কিলোমিটার দূরে শাকচর গ্রামে সড়কের পাশে মেসার্স একেপি ব্রিকস’র পরিত্যক্ত ইটভাটাটি রয়েছে। বেশ কয়েকবছর হয়েছে সেখানে ইট তৈরি হচ্ছে না। তবে প্রতিবছরই কাশফুল ফুটে দর্শণার্থীদের রশদ যোগাচ্ছে। জেলার পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত মজুচৌধুরীর হাট মেঘনা তীরে যাওয়ার পথেই কাশফুলগুলো দেখতে পাওয়া যায়।
জানা গেছে, ভাদ্র-আশ্বিন দুই মাস শরৎকাল। এটি বাংলাদেশের ষড়ঋতুর তৃতীয় ঋতু। আবার পৃথিবীর ৪টি প্রধান ঋতুর একটি শরৎকাল। এই ঋতু আসলেই প্রকৃতি সবুজে ভরে উঠে। নদী-খালের তীর, গ্রাম ও চরাঞ্চলে কাশফুল দেখা যায়। সবুজের ঘেরা প্রকৃতির মাঝে সাদা কাশ ছোট-বড় সব মানুষেরই নজর কাড়ে। কালের বিবর্তনে কাশফুল কম দেখতে পাওয়া যায়। হয়তো নদীর জেগে উঠা চরে এর দেখা মেলে। তবে সেখানে যাওয়া সবার জন্য সম্ভব না।
পরিবেশবাদী সামাজিক সংগঠন সবুজ বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন বাবু জানান, কাশফুল হারিয়ে যাচ্ছে। যেসব জায়গায় কাশফুল ফুটে ওই স্থানগুলোকে সংরক্ষণ করা দরকার। তাহলে আমাদের পরিবেশের পাশাপাশি দর্শণীয় স্থান হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। লক্ষ্মীপুরে কাশবনটিতে মানুষের ভীড়। পর্যটকদের মুখরিত করছে এ হারানো ঐতিহ্য।

আপনার মতামত এখানে লিখুন

Please Share This Post in Your Social Media

এই ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ
স্বত্বাধিকারী: রুরাল ইনহ্যান্সমেন্ট অর্গানাইজেশন (রিও) এর সহযোগী প্রতিষ্ঠান। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার জনকল্যাণ মন্ত্রনালয়ের সমাজসেবা থেকে নিবন্ধনকৃত।
Developed BY: AMS IT BD
Translate »