1. [email protected] : admin001 :
  2. [email protected] : Khairul Islam Sohag : Khairul Islam Sohag
  3. [email protected] : Mizanur Rahman : Mizanur Rahman
  4. [email protected] : JM Amin Hossain : JM Amin Hossain
  5. [email protected] : Soyed Feroz : Soyed Feroz
  6. [email protected] : Masud Sarder : Masud Sarder
  7. [email protected] : Kalam Sarder : Kalam Sarder
  8. [email protected] : Md. Imam Hoshen Sujun : Md. Imam Hoshen Sujun
  9. [email protected] : Royal Imran Sikder : Royal Imran Sikder
  10. [email protected] : amsitbd :
উৎসবের আমেজে খাগড়াছড়ির পাহাড়ে পাহাড়ে জুম ধান কাটা শুরু | সময়ের খবর
রবিবার, ০১ নভেম্বর ২০২০, ০৪:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
দারুস সালাম সলঙ্গা এর ২য় বর্ষে পদার্পণে সদস্যদের নিয়ে মতবিনিময় পিরোজপুরের স্বরূপকাঠিতে নিখোঁজের একদিন পরে স্কুল ছাত্রীর লাশ উদ্ধার  সলঙ্গা থানা আ.লীগের বর্ধিত সভায় ওয়ার্ড ও ইউনিয়নের সম্মেলন সম্পন্ন করার নির্দেশ সেনবাগে স্বামীকে হত্যার অভিযগে দ্বিতীয় স্ত্রী আটক কালীগঞ্জের সেই অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপক জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানাতেৃ সাধারন ডায়েরি কাউখালীতে সাজাভুক্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার রামপালে উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত কালীগঞ্জে আগে কেটেছে পটল ও পেয়ারা  ক্ষেত,এবার পুকুরে বিষটোপ দিয়ে মাছ নিধন  থানায় অভিযোগ বিনা ছুটিতে সহকর্মী চিকিৎসকের বিয়েতে, তিন চিকিৎসককে শোকজ! রামগঞ্জে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্যদিয়ে কমিউনিটি পুলিশিং ডে পালন

উৎসবের আমেজে খাগড়াছড়ির পাহাড়ে পাহাড়ে জুম ধান কাটা শুরু

মাসুদ রানা জয়, খাগড়াছড়ি:
  • আপডেট: শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

খাগড়াছড়ির পাহাড়ে পাহাড়ে চলছে জুমের পাকা ধান কাটার উৎসব। জেলার আট উপজেলায় বিশেষ করে দুর্গম পাহাড়গুলোতেদ চলতি মৌসুমে রোপিত জুমের পাহাড়ে পাহাড়ে পেকেছে ধান, খাবার উপযোগী হয়ে পড়েছে মারফাসহ হরেক রকম কৃষিপণ্য।

এসব কৃষিপণ্য জুম ক্ষেত থেকে আহরণ করে ক্ষেত-খামার এবং ঘরে তুলতে শুরু করেছেন জুমচাষিরা। এবারে জেলায় ৯ হাজার ২০ হেক্টর (পাহাড়ে চাষাবাদ) জুমচাষিরা আবাদ করে। ইতিমধ্যে চাষিরা জুম থেকে পাকা ধানসহ রকমারি ফসল কাটতে শুরু করেছে।

এ দৃশ্যটি পুরো পার্বত্য জেলার এ সময়ের চিত্রও বটে। একাধিক জুমচাষি জানান, এবারে জুমক্ষেতে ফলন ভাল হয়েছে,কারণ চলতি মৌসুমে আবহাওয়া ভালো এবং উৎপাদন পরিবেশ ভালোই ছিল। খাগড়াছড়ি এলাকার একাধিক জুমচাষি জানান, তাদের জুমে এবার ভালো ফসল হয়েছে। ধানের পাশাপাশি ছোটমরিচ,মারফা,মিষ্টি কুমরা,কুমড়া,তিল ও আদার ফলনও ভাল হয়েছে। তবে তিল ও আদা সংগ্রহ করা যাবে আরও কয়েক মাস পর। জেলার সদর,মাটিরাঙ্গা ,পানছড়ি,দীঘিনালা গুইমারা, উপজেলার দুর্গম এলাকায় এলাকায় পাহাড়গুলোতে একইভাবে জুমচাষ হয়েছে। এসব জুমেও ভালো ফলন হয়েছে ধানসহ রকমারী কৃষিপণ্যের।

এদিকে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ তথ্য মতে, পাহাড়ি বেশির ভাগ মানুষ জুম চাষ নির্ভর। আবাদী জমিতে ফলন কম হলে খাদ্য ঘাটতি দেয়। প্রতিবছর জুম চাষ করে তাদের আর্থ সামাজিক উন্নয়নসহ আর্থিক স্বচ্ছলতা আসে এবং সারা বছরের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়। বান্দরবানের মারমা, বম, ত্রিপুরাসহ ১১টি জুমিয়া সম্প্রদায়ের আয়ের প্রধান উৎস জুমচাষ। তারা এক মৌসুমের জুমের উৎপাদিত ফসল দিয়ে সারা বছরের পরিবারের খাদ্য যোগান দেন। ওই সম্প্রদায়গুলো যুগযুগ ধরে এভাবে জীবন যাপন করেন আসছে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক জানান, পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের অন্যতম আয়ের প্রধান উৎস জুম চাষ। পাহাড়িদের খাদ্য চাহিদা পূরণ হয় এই জুম চাষের মাধ্যমে। তাই জুম চাষে পাহাড়িদের সব ধরনের সহযোগিতা দেওয়া হয় কৃষি বিভাগ থেকে। এই কৃষিবিদ আরও জানান, চলতি মৌসুমে জেলায় নয় হাজার ২০ হেক্টর পাহাড়ি জমিতে জুম চাষ হয়েছে।

আপনার মতামত এখানে লিখুন

Please Share This Post in Your Social Media

এই ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ
স্বত্বাধিকারী: রুরাল ইনহ্যান্সমেন্ট অর্গানাইজেশন (রিও) এর সহযোগী প্রতিষ্ঠান। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার জনকল্যাণ মন্ত্রনালয়ের সমাজসেবা থেকে নিবন্ধনকৃত।
Developed BY: AMS IT BD
Translate »